• A
  • A
  • A
জেলাশাসককে ফেরানোর দাবিতে বিক্ষোভ, পাশে দাঁড়াল না IAS-দের সংগঠন

আলিপুরদুয়ার, ৯ জানুয়ারি : ফালাকাটা থানার ভিতর যুবককে মারধরের ঘটনায় আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক নিখিল নির্মলকে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। সূত্রের খবর, তাঁকে নাকি সরিয়েও দেওয়া হতে পারে। বিষয়টি জানতেই পেরেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে আলিপুরদুয়ারের বন্ধ চা বাগানের শ্রমিকদের একাংশ। বিষয়টি নিয়ে আজ ডুয়ার্সকন্যার সামনে বিক্ষোভও দেখায় তারা। যদিও এ ঘটনায় জেলাশাসক নিখিল নির্মলের পাশে দাঁড়ায়নি IAS-দের সর্বভারতীয় সংগঠন।

Loading the player...

অভিযুক্ত জেলাশাসকের সমর্থনে বিক্ষোভকারীরা বলেন, DM সাহেব আমাদের ভগবানের মতো। উনি চলে গেলে আমরা ভোট বয়কট করব। জেলার জন্য উনি অনেক কাজ করেছেন।


নিখিল নির্মলের স্ত্রী সম্পর্কে সোশাল মিডিয়ায় অশালীন মন্তব্য করার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন বিনোদ কুমার সরকার নামে এক যুবক। এরপরই ৬ জানুয়ারি ফালাকাটা থানায় গিয়ে IC সৌম্যজিৎ রায়ের সামনে অভিযুক্তকে মারধর করেন আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক নিখিল নির্মল ও তাঁর স্ত্রী। জেলাশাসক ও তাঁর স্ত্রীর কাছে বারবার ক্ষমা চাইলেও রেয়াত করা হয়নি বিনোদকে। মারধরের ভিডিয়োটি ভাইরাল হওয়ার পর বিভিন্ন মহলে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এরপরই জেলাশাসককে ছুটিতে পাঠানো হয়।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পরেই জেলাশাসকের বিরুদ্ধে নিন্দায় সরব হয় IAS-দের সর্বভারতীয় সংগঠন। তাদের তরফে টুইট করা হয় "রাজ্য সরকার ওই জেলাশাসকের কাছে ঘটনার ব্যাখ্যা চেয়েছে। এটা সমর্থনযোগ্য। প্রশাসক হিসেবে আইন নিজের হাতে নিয়ে নিখিল নির্মল যা করেছেন তা ভুল।"

স্থানীয় বিধায়ক অনিল অধিকারীও বলেন, "আইন আইনের পথে চলবে। আমরা এটা সমর্থন করছি না।"

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES