• A
  • A
  • A
অবসরের ৪ দিন আগে পদোন্নতি দাড়িভিট ইশুতে সাসপেন্ড স্কুল পরিদর্শকের

বালুরঘাট, ২৯ ডিসেম্বর : উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুরের দাড়িভিট স্কুলের ঘটনায় দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা স্কুল পরিদর্শক (মাধ্যমিক) নারায়ণচন্দ্র সরকারকে ক্লিনচিট দিল শিক্ষা দপ্তর। পাশাপাশি অবসরের ৪ দিন আগে তাঁকে অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর অফ স্কুল এডুকেশন পদে উন্নীত করা হয়েছে। গতকালই নারায়ণবাবুর কাছে পদোন্নতির চিঠি পৌঁছেছে। চিঠি পেয়ে তিনি গতকালই বিকাশ ভবনে কাজে যোগ দেন। সোমবার (৩১ ডিসেম্বর) তিনি চাকরি থেকে অবসর নেবেন।

নারায়ণচন্দ্র সরকার


শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে ২০ সেপ্টেম্বর রণক্ষেত্র হয়ে উঠেছিল উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরের দাড়িভিট হাইস্কুল। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় রাজেশ সরকার ও তাপস বর্মণ নামে ওই স্কুলের দুই প্রাক্তন ছাত্রের। গুলি চালানোর অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে। এই ঘটনার পর দাড়িভিট হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষককে রাজ্য শিক্ষা দপ্তর সাসপেন্ড করে। পাশাপাশি সাসপেন্ড করা হয় দক্ষিণ দিনাজপুরের স্কুল পরিদর্শক (মাধ্যমিক) নারায়ণচন্দ্র সরকার ও উত্তর দিনাজপুরের স্কুল পরিদর্শক (মাধ্যমিক) রবীন্দ্রনাথ মণ্ডলকে। দাড়িভিট হাইস্কুল থেকে প্রথমবার যখন স্কুল পরিদর্শকের অফিসে উর্দু শিক্ষক চেয়ে লিস্ট পাঠানো হয় তখন উত্তর দিনাজপুর জেলার পরিদর্শক (মাধ্যমিক) ছিলেন নারায়ণচন্দ্র সরকার। দাড়িভিট কাণ্ডের পর ২ নভেম্বর বিকেলে শিক্ষা দপ্তর থেকে চিঠি পান তিনি। তাতে উল্লেখ রয়েছে দাড়িভিট কাণ্ডের জন্যই ওনাকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।
এদিকে, ৩১ ডিসেম্বর নারায়ণবাবু চাকরি থেকে অবসর নেবেন। তার আগে এমন নির্দেশিকায় মানসিকভাবে তিনি ভেঙে পড়েছিলেন। পরে দাড়িভিট কাণ্ডের বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়। তদন্তে নির্দোষ প্রমাণিত হন নারায়ণবাবু। অবশেষে গতকাল তিনি পদোন্নতির চিঠি পান।


নারায়ণচন্দ্র সরকার কলকাতা থেকে ফোনে বলেন, ২০১২ সালের ডিসেম্বরে আমি DI হিসেবে উত্তর দিনাজপুর জেলায় কাজে যোগ দিই। সেখান থেকে ১ বছর ৩ মাস আগে দক্ষিণ দিনাজপুরের DI হিসেবে কাজে যোগ দিই। দাড়িভিট হাইস্কুলের ঘটনায় আমাকে সাসপেন্ড করা হয়েছিল। বিভাগীয় তদন্তে সব প্রমাণ পেশ করে নির্দোষ প্রমাণিত হই। আমার কোনও ভুল ছিল না। চারদিনের জন্য আমার পদোন্নতি হয়েছে। সোমবার কাজ করে অবসর নেব।"
উল্লেখ্য, একই ঘটনায় উত্তর দিনাজপুরের বিদ্যালয় পরিদর্শক রবীন্দ্রনাথ মণ্ডলেরও সাসপেনশন তুলে নিয়েছে শিক্ষা দপ্তর। শুধু তাই নয় তাঁকেও আসিট্যান্ট ডিরেকটর পদে বসিয়েছে দপ্তর। গতকালই এই নির্দেশ এসেছে জেলা শিক্ষা দপ্তর। তাঁকেও অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর অফ স্কুল এডুকেশন পদে উন্নীত করা হয়েছে।


CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES