• A
  • A
  • A
বন্ধ রেড ব্যাঙ্ক চা বাগান খুলতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার

জলপাইগুড়ি, ৪ জানুয়ারি : জলপাইগুড়ির রেড ব্যাঙ্ক চা বাগান খুলতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার। রেড ব্যাঙ্ক চা বাগানের ভ্যালুয়েশন করে নবান্নকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ওই চা বাগান কেনার জন্য নতুন মালিক পেয়ে গেছেন বলে জানিয়েছেন আলিপুরদুয়ারের বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী। জলপাইগুড়ির জেলাশাসক শিল্পা গৌরীসারিয়া জানিয়েছেন, জেলার বন্ধ চা বাগান খোলার জন্য অকশন করবে রাজ্য সরকার।

Loading the player...
ভিডিয়োয় শুনুন শিল্পা গৌরীসারিয়া ও সৌরভ চক্রবর্তীর বক্তব্য


২০০৩ থেকে বন্ধ ধুপগুড়ি ব্লকের রেড ব্যাঙ্ক চা বাগান। নানা জটিলতার কারণে এতদিন চা বাগানটি খুলতে সমস্যা হচ্ছিল। গতকাল জলপাইগুড়ি জেলাশাসকের অফিসে এনিয়ে বৈঠক হয়। সৌরভবাবু বলেন, "আমরা আশাবাদী যে রেড ব্যাঙ্ক চা বাগান খুব তাড়াতাড়ি খুলে দিতে পারব।"
শিল্পা গৌরীসারিয়া বলেন, "জেলায় পাঁচটি চা বাগান বন্ধ আছে। রেড ব্যাঙ্ক, সুরেন্দ্রনগর, ধরণিপুর,সাইলি,কুমলাই চা বাগান বন্ধ আছে। আমরা চেষ্টা করছি সবকটি চা বাগান খুলতে। চা বাগান কিনতে আগ্রহী মালিকদের সঙ্গে কথাও বলছি। চ্যাংমারি চাবাগান ও রায়পুর চাবাগান নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। আজও চ্যাংমারি চাবাগান নিয়ে ডেপুটি লেবার কমিশনারের অফিসে বৈঠক হয়েছে। আমরা আশা করছি খুব তাড়াতাড়ি চা বাগানের সমস্যা মিটে যাবে। বন্ধ চা বাগানগুলোর ভ্যালুয়েশন করা হয়েছে।"


চা বাগানটি বন্ধ থাকায় শ্রমিকরা খুব সমস্যার মধ্যে রয়েছেন। কেউ বাগান ছেড়ে ভিনরাজ্যে চলে গেছেন। মানব পাচারের জালেও কেউ কেউ জড়িয়ে গেছেন। এখনও অনেকে তাঁদের রুটি রুজির তাগিদে বাগান ছাড়া। রাজ্য সরকারের এই উদ্যোগে কিছুটা খুশির হাওয়া বইছে শ্রমিক মহলে। কবে চা বাগান খোলে সেই আশায় দিন গুনছে সাধারণ মানুষ।

বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী বলেন, "রেড ব্যাঙ্ক চা বাগান কেনার জন্য একজন শিল্পপতি এগিয়ে এসেছেন। আমরা বাগানের ভ্যালুয়েশন করে নবান্নে পাঠিয়ে দিয়েছি। এখানে আইনি জটিলতা নেই। নবান্ন থেকে অনুমতি পেলেই তিনি চা বাগান কিনে তা খুলতে আগ্রহী।"

২০১৫ সালে বন্ধ রেড ব্যাঙ্ক চা বাগান পরিদর্শনে এসেছিলেন তৎকালীন কেন্দ্রীয় বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। তারপর, চা বাগান খোলার ব্যাপারে কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। ২০০৩ সাল থেকে বন্ধ হয়ে আছে বাগানটি। ছেলেমেয়েরা পড়াশোনা ছেড়ে দিয়েছে টাকার অভাবে। পানীয় জলের সমস্যা আছে, বিদ্যুৎ নেই, রাস্তা খারাপ। চিকিৎসা পরিষেবাও নেই বলে অভিযোগ শ্রমিকদের।






CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES