• A
  • A
  • A
হারিয়ে যাওয়া ছেলেকে খুঁজতে প্রতিদিন পৌঁছান মর্গে

মালদা, ৩১ ডিসেম্বর : প্রায় এক মাস চার দিন ধরে হারিয়ে যাওয়া ছেলেকে খুঁজে বেড়াচ্ছেন শহরের এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত। সংসার সামলানোর সঙ্গে নিয়মিত পুলিশ স্টেশন এবং মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ছেলের খোঁজ করতে যান আম্মা। উঁকি মেরে দেখেন মেডিকেল কলেজের মর্গও। যদি সেখানে বরফে মোড়া থাকে ছেলে! বয়সের ভারে ন্যুব্জ। তবুও হার মানতে নারাজ তিনি। ছেলেকে না পাওয়া পর্যন্ত খোঁজ চালিয়ে যাবে বলে জানান।

Loading the player...

পুরাতন মালদার বুধিয়া সংলগ্ন ইসলামপুরে বসবাস জুবেদা বিবির। শওহর মোস্তাফা আলি গত হয়েছেন অনেক বছর আগেই। পিছনে ছেড়ে গেছেন তিন ছেলেকে। বড় ও ছোটো ছেলে কর্মসূত্রে ভিন রাজ্যে থাকেন। এই অবস্থায় আম্মার একমাত্র অবলম্বন মেজো ছেলে তজবুর রহমান (৩৪)। বছর তিনেক আগে ছেলের নিকাহ দেন জ্যোৎস্নারা বিবির সঙ্গে। তাঁদের একমাত্র মেয়ে সাহিনা পারভিনের বয়স মাত্র এক বছর। মাস দুয়েক থেকে তজবুর রাতে ঘুমোতে পারছিলেন না। না ঘুমিয়ে দিন দিন মেজাজ খিটখিটে হয়ে উঠছিল। আম্মা জুবেদা বিবি তাঁর চিকিৎসা করানোর জন্য ২৬ নভেম্বর তাঁকে মালদা মেডিকেলের আউটডোরে নিয়ে যান। ফেরার পথেই নিঁখোজ হয়ে যায় ছেলে। তারপর থেকে শুধুই ছেলেকে ফিরে পাওয়ার প্রতীক্ষা। থানায় অভিযোগ করা থেকে শুরু করে বিভিন্ন মোড়ে পোস্টার লাগানো, সবই করেছেন তিনি। কিন্তু এখনও মেলেনি ছেলের সন্ধান। ছেলের কোনও দুর্ঘটনা ঘটল না তো। এই আশঙ্কায় রোজ একবার করে ছুটে যান মালদা মেডিকেলের মর্গে।
গতকাল মালদা মেডিকেলের মর্গের সামনে জুবেদা বিবি বলেন, মেজো ছেলে তজবুরের বেশ কিছুদিন ধরেই ঘুম আসছিল না। না ঘুমিয়ে তাঁর মেজাজ খিটখিটে হয়ে উঠেছিল। ২৬ নভেম্বর তিনি ছেলেকে নিয়ে মালদা মেডিকেলের আউটডোরে ডাক্তার দেখাতে গেছিলেন। আউটডোর থেকে বেরোনোর পরেই তিনি আর ছেলেকে দেখতে পাননি। ছেলের খোঁজে তিনি মিসিং ডায়েরি করেছেন। ছেলের দেখা নেই। কিন্তু তিনি তো মা। মায়ের মনের অস্থিরতা বুঝতে পারেন মেডিকেলের লোকজনও। আইন ভেঙেও তাই জুবেদা বিবিকে প্রতিদিন প্রতিটি মৃতদেহ দেখতে দেন তাঁরা। আসলে মায়ের মমতার কাছে কোনও আইনই তাঁদের বেঁধে রাখতে পারে না। তাঁরাও চান, খুব তাড়াতাড়ি ছেলের দেখা পান জুবেদা।




CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES