• A
  • A
  • A
ডাইনি সন্দেহে বিতাড়িত পরিবারকে ঘরে ফেরানোর উদ্যোগ প্রশাসনের

মালদা, ৩ জানুয়ারি : ডাইনি অপবাদে গ্রাম থেকে বিতাড়িত এক আদিবাসী পরিবারকে ঘরে ফেরানোর উদ্যোগ নিল প্রশাসন। ঘটনাটি হবিবপুর ব্লকের শ্রীরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের পেট্রোলগড়ের। ডাইনি অপবাদে ওই পরিবার তিন মাসেরও বেশি ঘরছাড়া। অভিযোগ, পুলিশ ও প্রশাসন পরিবারটিকে এতদিন ঘরে ফেরানোর উদ্যোগ নেয়নি। ঘরে ফিরতে ওই পরিবারের সদস্যরা আজ BDO অফিসের সামনে ধরনায় বসার প্রস্তুতি নেয়। তখন টনক নড়ে ব্লক প্রশাসন ও পুলিশের। আগামীকাল পরিবারটিকে ঘরে ফেরানো হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন BDO।

Loading the player...

পেট্রোলগড়ে ৩ জনের মৃত্যু ও এক বালকের অসুস্থতার জন্য ১৯ সেপ্টেম্বর স্থানীয় এক জানগুরু নিতাই কিসকু এলাকার বাসিন্দা গণেশ মুর্মু ও তাঁর স্ত্রী মাইকাকে ডাইনি অপবাদ দেয়। এর জেরে গ্রামের বাসিন্দাদের একাংশের রোষের মুখে পড়ে গণেশবাবুরা। প্রাণ বাঁচাতে পরদিন রাতেই বাড়ি ছাড়েন গণেশবাবু ও তাঁর স্ত্রী। তাঁদের সঙ্গে ঘর ছাড়েন গণেশবাবুর বোন সুরজমণি হাঁসদা, ছেলে শ্যাম হাঁসদা, পুত্রবধূ মণিকা সোরেন, নাতি রিপন হাঁসদা ও নাতনি ঋতিকা হাঁসদা। তারপর থেকে তাঁরা হবিবপুর ব্লকের এক আত্মীয়ের বাড়িতে রয়েছেন। ২৬ সেপ্টেম্বর হবিবপুর থানায় ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন মাইকা মুর্মু। কিন্তু পুলিশ সেই অভিযোগের ভিত্তিতে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ তাঁর।


শেষপর্যন্ত BDO অফিসের সামনে আজ পরিবারের সব সদস্যকে নিয়ে ধরনায় বসার সিদ্ধান্ত নেন গণেশবাবু। নিজেদের এই সিদ্ধান্তের কথা গতকাল তিনি লিখিতভাবে BDO অফিসে দপ্তরে জানিয়ে দেন। আজ সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ গণেশবাবুরা BDO দপ্তরের সামনে প্লাস্টিক বিছিয়ে ধরনায় বসতেই ঘটনাস্থানে যান IC ত্রিদিপ প্রামাণিক ও হবিবপুর থানার পুলিশ। IC নিজে তাঁদের BDO-র কাছে নিয়ে যান। পরে BDO ও IC তাঁদের জানান, আগামীকালই তাঁদের গ্রামে ফেরানোর ব্যবস্থা করা হবে।

BDO শুভজিৎ জানা বলেন, "ঘটনাটি জানতে পেরে পেট্রোলগড়ে কুসংস্কার বিরোধী প্রচার শুরু করা হয়েছে। আগামীকাল শ্রীরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের আদিবাসী সদস্য ও গণেশবাবুদের নিয়ে আলোচনায় বসছি। যাতে তাঁদের ঘরে ফেরানো যায়, আমরা তার চেষ্টা করছি।"


CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES