• A
  • A
  • A
রেজ়াল্টের রিভিউ প্রক্রিয়া চলছে, জানালেন গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য

মালদা, ১০ জানুয়ারি : ভুলে ভরা ফল প্রকাশ নিয়ে অবশেষে ক্যামেরার সামনে মুখ খুললেন গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য স্বাগত সেন। গতকাল ইনাডু ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকাশিত পার্ট ওয়ান ও টু-এর ফলে সমস্ত ভুল পরিমার্জনের কাজ শুরু হয়েছে। পড়ুয়াদের প্রত্যেকের হাতেই সঠিক এবং নির্ভুল ফলাফল তুলে দেওয়া হবে বলেও জানান উপাচার্য। তবে সেই সঙ্গে স্পষ্ট করে দেন যে রিভিউ মানে নতুন করে খাতা দেখা নয়, রিভিউ মানে শুধুমাত্র সমস্ত নম্বর ট্যাবুলেশন শিটে এবং মার্কশিটে তোলা হচ্ছে কি না তা খতিয়ে দেখা।

Loading the player...

৩ জানুয়ারি সন্ধ্যায় গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্ট ওয়ান ও টু-এর ফল প্রকাশিত হয়। এরপরই ক্ষোভে ফেটে পড়ে পড়ুয়ারা। গতবছরের তুলনায় এবার পাশের হার অনেকটাই কম। পার্ট ওয়ানে গতবার পাশের হার ছিল ৬৭.৭৮ শতাংশ। এবার তা কমে হয়েছে ৫১.৮৯ শতাংশ। পার্ট টু-তে গতবার পাশের হার ছিল ৮৪.৯৮ শতাংশ। কিন্তু, এবার তা কমে হয়েছে ৮০.৬৫ শতাংশ।
পড়ুয়াদের অভিযোগ, অনার্স পেপারগুলির ফল ঠিক থাকলেও পাসের বিষয়গুলিতে প্রকাশিত ফলে প্রচুর ভুল রয়েছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই গড় নম্বর দেওয়া হয়েছে। অনেক পরীক্ষার্থীই দু-চার নম্বরের জন্য অকৃতকার্য হয়েছে। এনিয়ে শুক্রবার তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের কন্ট্রোলার অফ এগজ়ামিনেশন শ্যামাপদ মণ্ডলের সঙ্গে দেখা করতে গেছিল। কিন্তু, তিনি ছুটিতে থাকায় তারা ভারপ্রাপ্ত কন্ট্রোলার রাজীব পুততুণ্ডর সঙ্গে দেখা করে বিষয়টি নিয়ে নিজেদের ক্ষোভ জানায়।


কয়েকজন ছাত্রছাত্রী রাজীব পুততুণ্ডর সঙ্গে দেখা করতে ৭ তারিখ ফের বিশ্ববিদ্যালয়ে এসেছিল। পড়ুয়াদের বিক্ষোভের আশঙ্কায় গেটে ছিল সাদা পোশাকের পুলিশ। পড়ুয়ারা বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের বাইরে জড়ো হতে শুরু করলে বন্ধ করে দেওয়া হয় গেট। সেদিন তাদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ঢুকতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করে তারা।

রাজীববাবু ইনাডু ইন্ডিয়ার কাছে স্বীকার করে নেন, প্রকাশিত ফলে বেশ কয়েকটি ত্রুটি তাঁদের নজরে আসে। সঙ্গে সঙ্গে উপাচার্য এই ফল রিভিউ করার নির্দেশ দিয়েছেন। সেই কাজ দ্রুতগতিতে চলছে। দু’ভাবে এই রিভিউয়ের কাজ করা হচ্ছে। একদিকে MCQ রেজ়াল্ট রিভিউ চলছে, অন্যদিকে বিষয়ভিত্তিক উত্তরপত্র রিভিউ করার জন্য টেকনিকাল কমিটি গঠিত হয়েছে। সেই কমিটিও ইতিমধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছে। পুরোপুরি রিভিউ হওয়ার পরই চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন উপাচার্য।

গতকাল ইনাডু ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একই কথা বলেন উপাচার্য স্বাগত সেন৷ তিনি বলেন, “আমরা কয়েকজন ছাত্রছাত্রীর কাছ থেকে এই অভিযোগ পাই। সঙ্গে সঙ্গে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্ত সমস্ত কলেজের অধ্যক্ষদের বলে দিই, এটা প্রভিশনাল রেজ়াল্ট। এই রেজ়াল্ট আমরা এখনই প্রকাশ করছি না। আমরা এতে কোনও ভুল পাওয়া যায় কি না তা খতিয়ে দেখছি। ভুল থাকলে তা সংশোধন করে আমরা নির্ভুল রেজ়াল্ট বের করব। এক্ষেত্রে ছাত্র সংগঠনও আমাদের সহযোগিতা করেছে।" তিনি আরও বলেন, "মাত্র ৩৪ দিনের মাথায় এই ফল প্রকাশ করা হয়েছিল। তাই যদি কোনও ভুল থাকে তা আমরা অবশ্যই খতিয়ে দেখব। সাধারণত MCQ প্রশ্নগুলির উত্তরপত্র মেশিনে দেখা হয়, তাতেই কিছু ভুল থাকে। কিন্তু আমরা কোনও ঝুঁকি নিচ্ছি না। আমরা সমস্ত রেজ়াল্টই রিভিউ করছি।"

বারবার গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকাশিত ফলাফলে ভুল দেখা যাচ্ছে। গত বছর এই কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটে। কেন বারবার এমন ঘটনা ঘটছে? সেই প্রশ্নের উত্তরে উপাচার্য জানান, “এটা সঠিক নয়। এরমধ্যে পার্ট-থ্রি সহ আরও কিছু রেজ়াল্ট নির্বিঘ্নে বেরিয়েছে। তবে কোনও কোনও সময় পরীক্ষার প্রশ্নপত্র কঠিন হতে পারে। আবার অনেক পরীক্ষার্থীদের মধ্যে অনার্স বিষয়ে বেশি দৃষ্টি দেওয়ার প্রবণতা রয়েছে। সেক্ষেত্রে তারা জেনেরাল পেপারে অবহেলা করে। এটা নতুন কিছু নয়। তবে এটা বলতে পারি, এখানে ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থ কোনও মতেই বিঘ্নিত হবে না।”

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES