• A
  • A
  • A
খেলায় পুরস্কার প্রাপকদের সিভিক ভলান্টিয়ারের চাকরির আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর

বোলপুর, ৪ জানুয়ারি : "গো-রক্ষার নামে মানুষ খুন করছ। পুলিশ থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ কেউ বাদ যাচ্ছে না।" বোলপুরে "বাউল ও লোকউৎসব"-এর মঞ্চ থেকে এভাবেই নাম না করে BJP-কে একহাত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর অভিযোগ, NDA সরকারের আমলে সারা দেশে ১২ হাজার শ্রমিক-কৃষক আত্মহত্যা করেছেন।

ছবি-মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়


গতকাল ইলামবাজারের কামারপাড়ায় "বাউল ও লোকউৎসব" অনুষ্ঠানের সভায় উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে তিনি ছাড়াও ছিলেন রাজ্যের কৃষি মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, মৎস্য মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা, রাজ্য পুলিশের DG সুরজিৎ কর পুরকায়স্থ, জেলাশাসক মৌমিতা গোদারা বসু, পুলিশ সুপার শ্যাম সিং, জেলা সভাধিপতি বিকাশ রায়চৌধুরি প্রমুখ। সভায় শতাধিক বাউল শিল্পী আনা হয়েছিল।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই বাউলদের সঙ্গে গানের তালে মাতেন মুখ্যমন্ত্রী। মৎস্য দপ্তর, তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তর, পরিবহন দপ্তর, শ্রম দপ্তর, অনগ্রসর শ্রেণিকল্যাণ দপ্তর সহ বিভিন্ন দপ্তরের তরফে ৪ হাজার ২ জন উপভোক্তার হাতে বিভিন্ন প্রকল্পে নানা সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়। পরে রাঙামাটি স্পোর্টস ও জঙ্গলমহল কাপ প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন খেলায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার হিসেবে ট্রফি, বাইক, স্কুটি, LED টিভি, সাইকেল তুলে দেওয়া হয়। এরপরেই মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, "যারা আজ প্রাইজ় পেল, তারা প্রত্যেকে সিভিক ভলান্টিয়ারের চাকরি পাবে।"


১২ জন বাউল শিল্পীকে সংবর্ধনা দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, "বাংলা একদিন ২৩-২৪ নম্বরে ছিল। আজ ১ নম্বরে। এটাই আমাদের গর্ব। বীরভূম জেলাকে "নির্মল জেলা" ঘোষণা করা হল। এনিয়ে রাজ্যে ২৩টি জেলার মধ্যে ১৬টিকে নির্মল জেলা ঘোষণা করা হল।"

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "BJP কেন্দ্রীয় সরকারে আছো। দিচ্ছ না তো কিছুই। লুটে নিচ্ছ। প্রতিবাদ করলে গো-রক্ষার নামে মানুষ খুন করছ। পুলিশ থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ কেউ বাদ যাচ্ছে না। ১২ হাজার শ্রমিক, কৃষক আজ দেশে আত্মহত্যা করছে।"

BJP-কে কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, "বাংলার মানুষ শান্তিতে আছে। ওদের গায়ে বড় জ্বালা। মানুষ শান্তিতে থাকলে রাজনীতি হবে কী করে? ইচ্ছে করে মিথ্যা কথা বলা, কুৎসা রটানো। আমি মনে করি শুধু ভারতবর্ষ নয়, সারা পৃথিবীর মধ্যে যদি কোনও শান্তির জায়গা থাকে, তা হল বাংলা।"

সভা শেষ করে মুখ্যমন্ত্রী বল্লভপুরের রাঙাবিতান গেস্ট হাউজ়ে ফিরে যান। আজ কলকাতার উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা তাঁর।

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES