• A
  • A
  • A
এবার কি BJP? কী বললেন অনুপম

বোলপুর, ৯ জানুয়ারি : তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় আজ জানিয়েছেন, বোলপুরের সাংসদ অনুপম হাজরা ও বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁকে দল থেকে বহিষ্কার করে। যদিও সৌমিত্র জানান, তিনি দল ছেড়েছেন। তিনি আজই BJP-তে যোগ দিয়েছেন। সৌমিত্রর মতো অনুপমও কি BJP-তে যোগ দিচ্ছেন? আজ অনুপমকে এনিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি সরাসরি উত্তর না দিয়ে বলেন, "এখনই এই বিষয়ে বললে খুব তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে। আর সৌমিত্র গেছে বলেই আমি যাব?"

Loading the player...
ছবি : অনুপম হাজরা(সৌজন্যে- টুইটার@Anupam Hazra)


বোলপুরের সাংসদ বলেন, "BJP-তে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে এখনই কিছু বলতে পারছি না। আমি তো রাজনৈতিক পরিবার থেকে আসিনি, শিক্ষক পরিবার থেকে এসেছি। রাজনীতি করা কোনওদিনই আমার কাছে বাধ্যতামূলক ছিল না। এটা একটা পছন্দের জায়গা ছিল। একটা অপশন মাত্র। তো এমন হতেই পারে যে, আমি আবার শিক্ষাজগতেই ফিরে গেলাম। আর সৌমিত্র গেছে বলেই আমি যাব? ও রাজনৈতিক পরিবার থেকে এসেছে, ফলে ও যেতেই পারে। আমি তো এখনও রাজনীতিতে নিজেকে খাপ খাওয়াতে পারিনি।"


তবে, একটি সূত্রে জানা গেছে, অনুপম মুখে BJP-তে যোগ দেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করলেও আজ দিল্লিতে এক বৈঠকে ঠিক হয়েছে লোকসভা নির্বাচনে তাঁকে টিকিট দেওয়া হবে। টিকিট পাওয়ার শর্তেই না কি তিনি BJP-তে যোগ দিচ্ছেন। ৮ ফেব্রুয়ারি ব্রিগেডে নরেন্দ্র মোদির সভায় তাঁর BJP-তে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, অনুপমকে দল থেকে বহিষ্কারের অন্যতম কারণ ফেসবুকে তাঁর বিভিন্ন বিতর্কিত পোস্ট। এই প্রসঙ্গে অনুপম বলেন, "হঠাৎ বহিষ্কারের কথা শুনে খুব অবাক হয়েছি। একটু হাস্যকরও লেগেছে। আমি শুনলাম বহিষ্কারের কারণ নাকি আমার সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাক্টিভিটি। তো আমার বক্তব্য হচ্ছে, যে সোশ্যাল মিডিয়া (ফেসবুক অ্যাকাউন্ট) নিয়ে কথা হচ্ছে সেটি তো ছয় মাস আগেই আমি বন্ধ করে দিয়েছিলাম। এই অদ্ভুত সিদ্ধান্তটা তখন নিলেই ভালো হত।" দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি বললেন, "আমার কাছের বন্ধু BJP-তে যোগ দিয়েছে বলে হঠাৎ আমাকে বহিষ্কার করা হল। অদ্ভুত লাগছে।"

অনুপমবাবু জানান, তিনি সংবাদমাধ্যমের কাছ থেকে বহিষ্কারের বিষয়টি জেনেছেন। দলের কারও সঙ্গে এবিষয়ে কথা হয়নি। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, "দিদির নাম ভাঙিয়ে তো লোকে এতকিছু করে নিচ্ছে, তাহলে ফেসবুক করাটা কি দল থেকে আমাকে বহিষ্কার করার যথার্থ কারণ? পার্থবাবুর কাছ থেকে এটা আমার জানার ইচ্ছা থাকল।" তিনি জানান, এবিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখবেন। বলেন, "একটা জিনিস আমি জানতে চাইব দিদিভাইয়ের কাছে যে, হঠাৎ কী এমন হল? আমাকে বহিষ্কার করার পিছনে কী সোশাল মিডিয়ার পোস্ট কারণ, নাকি অন্য কারোর মদত ছিল?"

অনুপমবাবু জানান, এবিষয়ে তিনি সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেও কথা বলবেন। তবে একই সঙ্গে তিনি বলেন, "আমি এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার জন্য কোনওদিন বলব না দলকে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্ররণায় যেহেতু রাজনীতিতে আসা, তাই আমি তাঁকে চিঠি লিখব।"
দল থেকে বহিষ্কারের পর আজ সন্ধ্যায় অনুপম একটি টুইট করেন। সেখানে তিনি লেখেন, আজ থেকে পড়াশোনার জন্য সময় পাব... নিঃশ্বাস নেওয়ার জন্য অনেকটা জায়গা থাকবে... জায়গা থাকবে চিন্তাভাবনার জন্য এবং যুক্তিযুক্তভাবে নিজের মতামত দেওয়ার জন্য, আর অবশ্যই নিজের অসমাপ্ত শিক্ষামূলক কাজের জন্য।


CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES