• A
  • A
  • A
হুগলিতে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষ, জখম যুব নেতা

হুগলি, ৩ জানুয়ারি : ফের তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী সংঘর্ষ হুগলির পুরশুরা এলাকায়। তৃণমূল যুব কংগ্রেসের এক কর্মীকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে এলাকারই দুই তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। গুরুতর জখম ওই কর্মী শেখ আলমগীর এখন আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে ভরতি। পনেরটি সেলাই দিতে হয়েছে তার মাথায়।

Loading the player...

ঘটনাটি মঙ্গলবার রাতের। পুরশুরার দলীয় কার্যালয় থেকে বাড়ি ফিরছিল শেখ আলমগীর। অভিযোগ, ঘোলদিঘরুই এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের দুই নেতা তাকে পার্টি অফিসে ঢুকিয়ে মারধর করে। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে রাস্তায় ফেলে চলে যায়। পরে তার পরিবারের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করে।


এই ঘটনায় পুরশুড়া থানায় খুনের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে পুরশুরা থানার পুলিশ গতকাল সকালে নেওটা গ্রাম পঞ্চায়েতের এক সদস্য হৃদয় মাঝি ও তৃণমূল নেতা প্রসেনজিৎ মাঝিকে গ্রেপ্তার করে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক মাস ধরে পুরশুরা, খানাকুল, আরামবাগ এলাকায় একাধিকবার তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষ ঘটেছে। শেখ আলমগীর বলে, "আমি যুব তৃণমূল কর্মী। বাড়ি ফেরার পথে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা আমাকে ধরে নিয়ে গিয়ে মারধর করে। হৃদয় মাঝি বেলচা দিয়ে মাথায় মারে। আরও অনেক তৃণমূলকর্মী মারে আমাকে। এখানে তৃণমূলের কোনও অস্তিত্ব নেই। ওরা মারধর করে এলাকায় ক্ষমতায় ফিরতে চাইছে।"

অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব। তাদের পালটা দাবি, তাদেরই দুই নেতাকে মারধর করেছে যুব তৃণমূলের কর্মীরা।


CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES