• A
  • A
  • A
একাধিক ব্যক্তির ধর্ষণ, অন্তঃসত্ত্বা মানসিক ভারসাম্যহীন

খানাকুল, ১১ জানুয়ারি : ধর্ষণের ফলে অন্তঃসত্ত্বা মানসিক ভারসাম্যহীন যুবতি। বিস্কুট, লজেন্সের লোভ দেখিয়ে তাকে একাধিক ব্যক্তি ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ ভাইয়ের। গত আট মাস ধরে চলে ধর্ষণ। এরপর শরীরে অস্বস্তি শুরু হলে বিষয়টি বুঝতে পেরে পরিবারের লোকজনকে জানায়। তার ভাই খানাকুল থানায় আটজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলে তাদের মধ্যে সাতজনকে গতরাতে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আজ তাদের আরামবাগ আদালতে তোলা হলে ৭দিনের পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

ছবিটি প্রতীকী


খানাকুলে বৃদ্ধ বাবার সঙ্গে থাকে ওই যুবতি। ভাই কর্মসূত্রে গুজরাতে থাকে। ফলে ওই যুবতিকে দেখার মতো কেউ ছিল না বাড়িতে। সে একশো দিনের কাজ করার ফলে এলাকায় বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াত। তার সরলতার সুযোগ নিয়ে অনেকে তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। ধর্ষণের ফলে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। যা বুঝতেও পারেনি। সাত মাস হয়ে যাওয়ায় ভূগর্ভস্থ সন্তান নড়াচড়া করলে সে পরিবারের লোকজনকে বলে। ডাক্তার এরপর তার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। পরিবারের তরফ থেকে শান্তি জানা, ভূষণ জানা, হারা জানা, লাল্টু জানা, গোবিন্দ কোরে, মেঘা কোটাল, রথীন কোটাল ও জ্যোতি কোটালের বিরুদ্ধে খানাকুল থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল রাতেই সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।


যুবতির ভাই এবিষয়ে বলেন, "আমি সোনার কাজের জন্য গুজরাতে থাকি। গত আট ন'মাস আগে থেকেই আমার দিদিকে কিছু জিনিসপত্র ও টাকার লোভ দেখিয়ে গণধর্ষণ করে। কাকারা বিষয়টা আমায় ফোনে জানায়। আমি খবর পেয়ে ওই আটজনের কঠোর শাস্তির দাবিতে পুলিশের শরণাপন্ন হয়েছি। আমি চাই আমার দিদির যারা ক্ষতি করেছে তাদের যেন ক্ষমা না করা হয়।"


CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES