• A
  • A
  • A
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লাখ লাখ সৌমিত্র খাঁ তৈরি করতে পারবেন : মানস

পুরুলিয়া, ১১ জানুয়ারি : "যাঁরা একটা কোলে লালিত পালিত হয়ে, একটি জায়গায় প্রতিষ্ঠিত হয়ে চলে যান তাঁদের মানুষ কখনও গ্রহণ করবে না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এমন একজন নেত্রী তিনি লাখ লাখ সৌমিত্র খাঁ, লাখ লাখ অনুপম হাজরা তৈরি করতে পারবেন।" বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ BJP-তে যোগ দেওয়ায় দলের উপর কোনও প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়ে দিলেন তৃণমূল নেতা মানস ভুঁইঞা।

Loading the player...
ভিডিয়োয় শুনুন মানস ভুঁইঞার বক্তব্য


বিগ্রেডের সভাকে সামনে রেখে পুরুলিয়ার কাশীপুরে সভা করেন তৃণমূল সাংসদ। সভাশেষে তিনি বলেন, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একটা জাদু, একটা মন্ত্র, একটা আদর্শ ও একটা গতিবেগ। বাংলার মাটিতে লাখ লাখ কর্মী, প্রতিনিধি তাঁর পতাকা, নাম, কথা নিয়ে এগিয়ে চলেছে। কোনও ব্যক্তি তৃণমূল কংগ্রেসের ক্ষতি করতে পারবে না। এই নিয়ে আমরা কোনও চিন্তা করছি না। এই নিয়ে যত কম আলোচনা করা যায়, ততই ভালো।"


তাঁর দাবি, তৃণমূল একজনকে ঘিরেই পরিচালিত হয়। তিনি হলেন দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর শুধু বাংলায় নয়, সারা দেশেই তৃণমূল সুপ্রিমো আগামীদিনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। মানসবাবুর কথায়, "কে আসছেন, কে যাচ্ছেন, সেটা বড় কথা নয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভারতের শ্রেষ্ঠ মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। আর আগামীদিনে ভারতের চালিকাশক্তি ও প্রধান নেত্রী হবেন। তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী হবেন।"

সম্প্রতি জেলার এক তৃণমূলকর্মীকে পিক আপ ভ্যানে করে অপহরণ করা হয় বলে অভিযোগ। তাঁর বাড়ির কিছুটা দূরে একটি ফাঁকা মাঠে পিক আপ ভ্যানটি দেখা যায়। ঘটনাস্থান থেকে উদ্ধার হয় একটি পোস্টারও। সেই পোস্টারে মুক্তিপণ হিসাবে ৩০ লাখ টাকা দাবি করা হয়েছে। পোস্টারের শেষে লেখা "জয় শ্রী রাম"। সে প্রসঙ্গে মানসবাবু বলেন, "আমরা প্রশাসনকে বলেছি খুঁজে বের করুন, অনুসন্ধান করুন। আমরা আইন হাতে তুলে নিতে চাই না। BJP-র লোকজন যদি মনে করেন এক-দুজন লোককে তুলে নিয়ে গিয়ে ভয় দেখাতে পারবে, তাহলে তারা মূর্খের স্বর্গে বাস করছে। আমি চাই প্রশাসন তাকে অবিলম্বে খুঁজে বের করে পরিবারের হাতে তুলে দিক। আর আমি আমার কর্মী-নেতাকে প্রতি মুহূর্তে সজাগ থাকতে বলছি।" পাশাপাশি, তিনি অভিযোগ করেন পুরুলিয়াকে অশান্ত করতে ভিন রাজ্য থেকে লোক আনছে BJP। তাঁর বক্তব্য, "ঝাড়খণ্ডের পাশের রাজ্য হওয়ায় BJP-র গুন্ডারা ফাঁকফোকর দিয়ে ঢুকে আমাদের মানুষের উপর আঘাত করছে। প্রশাসনকে মঞ্চ থেকে বলি সজাগ থাকতে। নিজেরা তৈরি থাকুন। এরপর যদি কোনও কর্মীর গায়ে হাত পড়ে, কোনও জায়গায় গন্ডগোল বাঁধানোর চেষ্টা করা হয় আপনারা রুখে দাঁড়াবেন।"

CLOSE COMMENT

ADD COMMENT

To read stories offline: Download Eenaduindia app.

SECTIONS:

  হোম

  রাজ্য

  দেশ

  বিদেশ

  ক্রাইম

  খেলা

  বিনোদন-E

  ইন্দ্রধনু

  অনন্যা

  গ্যালারি

  ভ্রমণ

  ଓଡିଆ ନ୍ୟୁଜ

  আয়না ২০১৮

  MAJOR CITIES